করোনার দাপটে পুরো বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশ রয়েছে ‘লকডাউন’ অবস্থায়। আমাদের দেশেও এর ভিন্নতা নেই। ঘরে বসে এই সময়টা কাটাতে বইয়ের চেয়ে ভালো সঙ্গী আর কি বা হতে পারে।

একেক জনের বই-য়ের পছন্দ একেক রকম। তাই আমার মতামতে যেই বইটি সেরা সেটা অপরজনের মনের খোড়াক নাই মেটাতে পারে। তবে বাংলা সাহিত্যে এমন কিছু রত্ন রয়েছে যার তুলনা হয় না। এমনই কিছু বই হতে পারে কোয়ারিন্টিন পার করার সঙ্গী।

পথের পাঁচালী

প্রখ্যাত সাহিত্যিক বিভূতিভূষণ বন্দোপাধ্যায় রচিত এই উপন্যাসটি প্রকাশিত হয় ১৯২৯ সালে। এই উপন্যাস সম্পর্কে নতুন করে বলার কিছু নেই। যারা বই পড়তে ভালোবাসেন বা অন্তত ধারণা রাখেন তাদের কাছে এই নামটি খুবই পরিচিত। একটি পারিবারকে কেন্দ্র করে এই উপন্যাসের কাহিনি গড়ে উঠেছে। উপন্যাসের প্রতিটি চরিত্রের পরিচিতি এবং গঠন নিখুঁতভাবে তুলে ধরা হয়েছে। সুন্দর ও সরল লেখনির জন্যই এই বইটি বহুল আলোচিত ও সমাদৃত হয়েছে।

চাঁদের পাহার

বিভূতিভূষণ বন্দোপাধ্যায় রচিত আরও একটি অনবদ্য সৃষ্টি ‘চাঁদের পাহার’। এই রোমাঞ্চ উপন্যাসটি ১৯২৭ সালে প্রকাশিত হয়। উপন্যাসের প্রধান চরিত্রের শঙ্কর রায়ের আফ্রিকা ভ্রমনের অভিজ্ঞতা নিয়ে লেখা এই উপন্যাস। রোমাঞ্চ ভ্রমন উপন্যাস পছন্দ হলে এই বইটি বেছে নিতে পারেন নির্দিধায়।

শেষের কবিতা

কবি গুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত অনবদ্য একটি রচনা ‘শেষের কবিতা’। খুব সাধারণ একটি প্রেমের গল্পকে ভিন্নভাবে তুলে ধরা হয়েছে এই উপন্যাসটিতে। যদি পড়া না হয়ে থাকে, এই সুযোগে একবার পড়ে নিতে পারেন।

ফেলুদা সমগ্র (১ ও ২)

গোয়েন্দা গল্পের প্রতি যদি আগ্রহ থাকে চোখ বুজে এই বই দু’টি নিয়ে বসতে পারেন। বই বা সিনেমা না দেখা হলেও ফেলুদার নাম জানেন না এমন বাঙালি পাওয়া মুশকিল। সত্যজিৎ রায়ের অন্যতম সৃষ্টি প্রদোষ মিত্র (ফেলুদা), তার খুড়তুতো ভাই তপেশরঞ্জন মিত্র (তোপসে) এবং লেখক লালমোহন গাঙ্গুলি (জটায়ু) এই চরিত্র তিনটি। সত্যজিৎ রায়ের লেখনিতে প্রতিটি গল্প অনেক বেশি জীবন্ত হয়ে উঠেছে। তাই এই সময় নিজেকে ব্যস্ত রাখতে এই বই দু’টি অতুলনীয়।

মিসির আলি সমগ্র

নন্দিত লেখক হুমায়ূন আহমেদের সৃষ্ট অনবদ্য একটি চরিত্র মিশির আলি। সাধারণ গোয়েন্দা কাহিনী বা ‘ক্রাইম-থ্রিলার’-এর তুলনায় মিশির আলির প্রতিটি রহস্য অনেকটাই ভিন্ন। মানুষের চিন্তা এবং মনস্তাত্বিক দিকগুলো নিয়ে গবেষণা করেন মনোবিজ্ঞানের অধ্যাপক মিসির আলি। যুক্তি এবং বাস্তবতাকে মিলিয়ে তিনি জট ছাড়ান প্রতিটি রহস্যের। দুশ্চিন্তা এবং বর্তমান অনিশ্চয়তা কিছুক্ষণ ভুলে থাকতে মিশির আলির গল্পগুলো বেছে নেওয়া যেতে পারে।