মুক্তি পাবে নৃ, যদিও থাকবেন না রাসেল আহমেদ

আচমকা নিজের দ্বিতীয় বিবাহবার্ষিকীতে গত ১৫ মের সন্ধ্যায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন রাসেল আহমেদ। দীর্ঘদিন ধরে নিজের প্রথম পরিচালিত চলচ্চিত্র নৃ-এর কাজ করছিলেন তিনি। নানা চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে চলচ্চিত্রটির কাজও প্রায় শেষ করে এনেছিলেন। কিন্তু শেষ আর করতে পারলেন না। তার আগেই যাত্রা করলেন পরপারে।

বরিশালের ছেলে রাসেল আহমেদ ঢাকায় আসেন ২০১০ সালে, চলচ্চিত্র নির্মাণের স্বপ্ন নিয়ে। পরিচালনায় হাত পাকাতে নির্মাণ করেছিলেন কয়েকটি নাটকও। এর মধ্যে ফ্লাইওভারকনফেশন নাটক দুটো বেশ প্রশংসিত হয়।

২০১২ সালে নৃ চলচ্চিত্রের কাজ শুরু করেন রাসেল আহমেদ

পরে ২০১২ সালের আগস্টে নৃ চলচ্চিত্রের প্রি-প্রোডাকশনের কাজ শুরু করেন রাসেল আহমেদ, তার নিজের প্রযোজনা সংস্থা থিম থিয়েটার উইজার্ড ভ্যালীর প্রযোজনায়। চিত্রগ্রাহক হিসেবে যোগ দেন শরীফ খৈয়াম আহমেদ ঈয়ন। সম্পাদক হিসেবে আছেন সামির আহমেদ।

২০১৩ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি চলচ্চিত্রটির শুটিং শুরু হয়। চলচ্চিত্রটির পুরো শুটিং করা হয়েছে বরিশালে। অবশ্য অর্থসংকটের কারণে মাঝে বেশ কয়েক দফা চলচ্চিত্রটির কাজ বন্ধও ছিল। চলচ্চিত্রটির অর্থসংস্থানের জন্য তিনি পৈতৃক সম্পত্তিও বিক্রি করেছিলেন।

প্রথম চলচ্চিত্রের জন্য রাসেল আহমেদ বেছে নিয়েছিলেন অসাম্প্রদায়িক চেতনার একটি গল্প। বরিশালের মাধবপাশার ঐতিহাসিক জলাধার দূর্গাসাগর দিঘির প্রচলিত মিথকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে নৃ-র গল্প। সে গল্পের অনেকটা জুড়ে আছে চণ্ডালদের জীবন দর্শন ও ভাবনা।

বরিশালের মাধবপাশার দূর্গাসাগর দিঘির প্রচলিত মিথকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে নৃ-র গল্প

শুটিং শেষে চলচ্চিত্রটি সম্পাদনার কাজ শুরু হয়েছিল ফেব্রুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহে। মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল এ বছরই। এরই মধ্যে চলচ্চিত্রটির অফিসিয়াল টিজারও প্রকাশ করা হয়েছে। হয়তো এ বছরই মুক্তি পাবে নৃ। শুধু থাকবেন না পরিচালক রাসেল আহমেদ।

১৫ মে সোমবার হঠাৎ করেই হৃদরোগে আক্রান্ত হলে তাকে প্রথমে বাড্ডার একটা বেসরকারি হাসপাতালে ও পরে সেখান থেকে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। সে রাতেই তার মরদেহ বরিশালে নিয়ে যাওয়া হয়।

১৫ মে সোমবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান রাসেল আহমেদ

বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের ইতিহাসে এমন শোকাবহ ঘটনা অবশ্য এটাই প্রথম নয়। এর আগেও চলচ্চিত্র মুক্তির আগে পরিচালকের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। সাম্প্রতিকতম উদাহরণ ২০১৩ সালের কাজলের দিনরাত্রি। সেটিও ছিল পরিচালকের প্রথম চলচ্চিত্র। মুহম্মদ জাফর ইকবালের একই নামের জনপ্রিয় কিশোর উপন্যাস থেকে নির্মিত সজল খালেদের চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায় ৯ আগস্ট। পরিচালক সজল খালেদ একইসাথে ছিলেন পর্বতারোহীও। চলচ্চিত্রটি মুক্তির মাস তিনেক আগে, ২০ মে এভারেস্ট জয় করে ফিরে আসার পথে মারা যান তিনি।

নৃ চলচ্চিত্রের অফিসিয়াল টিজার দেখুন:

FOLLOW US ON

ICE Today, a premier English lifestyle magazine, is devoted to being the best in terms of information,communication, and entertainment (ICE).